সুস্বাস্থ্যের জন্য চাই সঠিক নিয়মিত ও পরিমিত খাবার।। "Maintaining your skin at its optimal health and apearance will greatly contribute to your quality of life". নিরাপদ পুষ্টিকর খাবার সুস্থ জীবনের অঙ্গীকার।।
Post

লিউকেমিয়া রোগের উপসর্গগুলো কী? জেনে নিন এখনি।।

চর্ম যৌন ও ত্বক

লিউকেমিয়া এক ধরনের ব্লাড ক্যান্সার । সারা বিশ্বে প্রতি বছর শতকরা ১০ ভাগ মানুষ এই ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। সাধারণত শিশু ও অল্প বয়সীদের মধ্যে এই ক্যান্সারের প্রবণতা বেশি দেখা যায়।

 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, লিউকেমিয়া প্রাথমিক অবস্থায় নির্ণয় করা গেলে তা নিরাময় সম্ভব। তবে সব ধরনের লিউকেমিয়া প্রাথমিক অবস্থায় শনাক্ত করা যায় না। আবার কোনও কোনও লিউকেমিয়া কিছু লক্ষণ প্রকাশ করে। যেমন:-

১. রক্তশূন্যতার কারণে লোহিত কণিকা সারা শরীরে অক্সিজেন সরবরাহ করতে পারে না। তখন শরীরের সেলগুলো দূর্বল হয়ে পড়ে। রক্তশূন্যতার সঙ্গে যদি মাথা ঘোরা, ম্লান ত্বক বা অতিরিক্ত দুর্বল লাগা থাকে তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত। 

১. রক্তশূন্যতার কারণে লোহিত কণিকা সারা শরীরে অক্সিজেন সরবরাহ করতে পারে না। তখন শরীরের সেলগুলো দূর্বল হয়ে পড়ে। রক্তশূন্যতার সঙ্গে যদি মাথা ঘোরা, ম্লান ত্বক বা অতিরিক্ত দুর্বল লাগা থাকে তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত।

২. লিউকেমিয়া হলে সহজেই রক্তপাত হয়। যদি ত্বকের বিভিন্ন জায়গায় লালচে দাগ দেখা দেয় তাহলে সেটা বিপদের বার্তা বহন করে। এছাড়া নাক দিয়ে রক্ত পড়া কিংবা ব্রাশ করার সময় রক্তপাত হওয়াও লিউকেমিয়ার লক্ষণ হতে পারে। 

৩. লিউকেমিয়া হলে সবসময় হালকা জ্বর,মাথাব্যথা, মুখে ব্যথা কিংবা ত্বকে ফুসকুড়ি দেখা দিতে পারে। 

৪. খাবারের প্রতি অনীহা এবং দ্রুত ওজন কমে যাওয়া লিউকেমিয়ার অন্যতম লক্ষণ।

৫. ঘন ঘন জ্বর বা ইনফেকশন হলেও লিউকেমিয়ার লক্ষণ হতে পারে। 

৬. লিভার ও কিডনির আকার বড় হয়ে যাওয়া এবং গলার নীচের অংশ ফুলে ওঠাও লিউকেমিয়ার উপসর্গ ধরা হয।

উপরোক্ত লক্ষণগুলো দেখা দিলেই যে লিউকেমিয়া হবে এমন কোনও কথা নেই। তবে শরীরের এ ধরনের উপসর্গ দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া জরুরি।

মোঃ আবদুর রহমান ফাহাদ।।

জুনিয়র মেডিসিন কনসালটেন্ট।। 

12 comments

leave a comment