সুস্বাস্থ্যের জন্য চাই সঠিক নিয়মিত ও পরিমিত খাবার।। "Maintaining your skin at its optimal health and apearance will greatly contribute to your quality of life". নিরাপদ পুষ্টিকর খাবার সুস্থ জীবনের অঙ্গীকার।।
Post

কোমার ব্যাথায় যা যা করবেন জেনে নিন।।

বাত ব্যাথা

মানুষ দৈনন্দিন নানা ধরনের শারীরিক সমস্যায় ভোগেন। এর মধ্যে একটি হচ্ছে কোমরের ব্যথা বা ব্যাক পেইন। প্রতি ১০ জনে আটজন কম বেশি কোমরের ব্যথায় ভোগেন। চেষ্টাও করেন তা থেকে উপশম হওয়ার। তবে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রোগের উপসর্গও বাড়তে থাকে। জেনে নিন কোমর ব্যথার কিছু প্রতিকার সম্পর্কে।

১. সব সময় শক্ত সমান বিছানায় ঘুমাতে হবে। ফোমের বিছানায় ঘুমানো যাবে না।

২. ঝুঁকে বা মেরুদণ্ড বাঁকা করে কোনো কাজ করবেন না।

৩. সিঁড়ি ব্যবহারের সময় হাতল ধরে মেরুদণ্ড সোজা রেখে ধীরে ধীরে উঠা-নামা করতে হবে।

৪. মোটা ব্যক্তির শরীরের ওজন কমাতে হবে এবং সবসময় ওজন নিয়ন্ত্রণ রাখতে হবে।

৫. পিঁড়িতে বসে কোনো কাজ যেমন­ মাছ কাটা, শাকসবজি কাটা ইত্যাদি করবেন না।

৬. একই সঙ্গে বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে অথবা বসে থাকবেন না।

৭. সোজা হয়ে বসে পানি তোলা, বসে গোসল করার সময় সোজা হয়ে বসা।

৮. ঘুম থেকে ওঠার সময় যেকোনো একদিকে কাত হয়ে উঠবেন।

৯. ঘুমানোর সময় সোজা হয়ে ঘুমাতে হবে। বেশি নড়া-চড়া করা যাবে না।

১০. নিয়মিত শারীরিক অর্থাৎ কায়িক পরিশ্রম করতে হবে।

১১. ব্যথাকে অবহেলা করবেন না। অবশ্যই চিকিৎসক অথবা ফিজিওথেরাপিস্টের কাছে যাবেন।

১৩. চিকিৎসাব্যবস্থার পাশাপাশি চিকিৎসকরোগীকে ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক রেডিয়েশন, আলট্রাসাউন্ড থেরাপি, লাম্বার ট্রাকশন ও বিভিন্ন ব্যায়াম দিয়ে থাকেন।

১৪. কোথাও বেশি হেলান দিয়ে বসা বা শোয়া যাবে না। ইহা মারাত্মক ক্ষতি করে।

১৫. সময়মত ঘুমিয়ে পড়বেন। ডানকাত হয়ে ঘুমাবেন। বামকাত ও উপুড় হয়ে কখনো ঘুমাবেন না।

১৬. ওজন কমাতে হবে আপনার উচ্চতা ও বয়স অনুসারে।

১৭. সাময়িক উপশমের জন্য গরম পানি বা কাপড় দিয়ে সেক দিন।

মোঃ আব্দুর রহমান ফাহাদ।।

 

জুনিয়র মেডিসিন কনসালটেন্ট।।

12 comments

author
author

leave a comment